1. eliusmorol@gmail.com : দিঘলিয়া ওয়েব ব্লগ : দিঘলিয়া ওয়েব ব্লগ
  2. rahadbd300@gmail.com : rahad :
বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

।।ভিপি নুরের ওপর হামলার অভিযোগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের দুই নেতা আটক।।

☞সার্বিক সম্পাদনায়ঃ মোড়ল মোঃ ইলিয়াস হুসাইন
  • আপডেট সময়ঃ মঙ্গলবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৪২৮ বার সংবাদটি দেখা হয়েছে।

।।ভিপি নুরের ওপর হামলার অভিযোগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের দুই নেতা আটক।।
★বিক্ষোভে উত্তাল ক্যাম্পাস★নুরসহ অন্যদের উন্নতি ★সনজিত-সাদ্দামকে গ্রেফতারের দাবি★
।।দিঘলিয়া ওয়েব ব্লগ বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার।।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহসভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর ও তার সহযোগীদের ওপর হামলার বিচারের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্য’ ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল করেছে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, বাম ছাত্র ঐকজোট ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এদিকে, এ ঘটনায় আহত ভিপি নুরুল হক নুরসহ পাঁচ জন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিত্সাধীন আছেন। তারা সবাই হাসপাতালের কেবিনে ভর্তি। চিকিত্সাধীন অন্যরা হলেন আমিনুর, এপিএম সোহেল, তুহিন ফারাবি ও ফারুক হোসেন। গত রবিবার তুহিন ফারাবির শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা ছিল বলে তাকে লাইফ সাপোর্টে দেওয়া হয়েছিল। এখন তিনি আগের চেয়ে অনেক ভালোভাবে শ্বাস নিতে পারছেন। গতকাল সকালে তুহিন ফারাবিকে লাইফ সাপোর্ট থেকে ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের দুই নেতাকে আটক করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। তাদের মিন্টো রোডের গোয়েন্দা কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আটককৃতরা হলেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন এবং ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য। এ ব্যাপারে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) আব্দুল বাতেন বলেন, দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে আটকের ঘটনায় ভিপি নুরুল হক বলেন, আল মামুন ও তূর্য হামলায় অংশ নিয়েছিল। কিন্তু হামলার নেতৃত্বে ছিল সনজিত এবং সাদ্দাম। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। যদি হামলার বিচার করার মানসিকতা থাকে তবে সাদ্দাম ও সনজিতকে আগে গ্রেফতার করতে হবে। সরকারি দলের লোক বিধায় অন্যদের গ্রেফতার ঘটনার মোড় অন্যদিকে ঘুরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

দিনভর বিক্ষোভঃ

হামলার ঘটনায় গতকাল সোমবার দিনভর বিক্ষোভ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ থেকে এই বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়। মিছিলটি প্রক্টর কার্যালয়ের সামনে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। সমাবেশে প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানীর পদত্যাগের দাবি জানান বক্তারা।

ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন বলেন, প্রক্টরকে দেওয়া ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম পার হয়ে গেলেও কোনো ব্যবস্থা নেননি। এই মুহূর্ত থেকে প্রক্টরকে বয়কট ঘোষণা করা হলো। সনজিত-সাদ্দামের নেতৃত্বে যে হামলা হয়েছে, তাদের সবাইকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। হামলার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষেরও মদত রয়েছে। এর দায় তারা এড়াতে পারেন না।

পরবর্তীতে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্যর ব্যানারে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক বিন ইয়ামিন মোল্লা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এই হামলার কথা জানত। হামলার দীর্ঘ ১ ঘণ্টা পর তারা আমাদের উদ্ধার করতে আসে। এই প্রশাসনের ওপর আমরা আস্থা রাখতে পারি না।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি সালমান সিদ্দিকি বলেন, যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলা হচ্ছে তা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ বিশ্বাস করে না।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জুনায়েদ সাকী বলেন, নুরু, রাশেদ, ফারুকদের ওপর হওয়া এমন নৃশংস হামলা খুবই কম দেখা গেছে।

কর্মসূচি ঘোষণা করে ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আকতার হোসেন বলেন, ‘ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরসহ শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সঙ্গে সমন্বয় করে হামলা করা হয়েছে। আমাদের দাবি, ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটামের মধ্যে এসব চিহ্নিত সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করতে হবে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর এজিএস সাদ্দাম হোসেন ছাত্রলীগ হামলার সঙ্গে জড়িত নয় জানিয়ে বলেন, এ ঘটনায় কারণ ছাড়াই ছাত্রলীগকে জড়ানো হচ্ছে। অথচ ছাত্রলীগ এ ঘটনার সঙ্গে কোনোভাবে সম্পৃক্ত নয়।

ছয় সদস্যের তদন্ত কমিটিঃ

এদিকে নুরুলের ওপর হামলার ঘটনায় ছয় সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। হামলার ঘটনাকে অনাকাঙ্ক্ষিত ও দুঃখজনক বলে উল্লেখ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

☞সংবাদ টি শোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ⬇️

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

☞এ জাতীয় আরও সংবাদঃ