1. eliusmorol@gmail.com : দিঘলিয়া ওয়েব ব্লগ : দিঘলিয়া ওয়েব ব্লগ
  2. rahadbd300@gmail.com : rahad :
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:২৪ অপরাহ্ন

।।পাবনা ভাঙ্গুড়া এজেন্ট ব্যাংকের মাঠ কর্মী টাকা নিয়ে পলাতকঃ মোবাইলে প্রাণনাশের হুমকি।।

মো: ইলিয়াস হোসেন
  • সর্বশেষ আপডেট: রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৪৮৪ বার সংবাদ টি দেখা হয়েছে

।।পাবনা ভাংগুড়া এজেন্ট ব্যাংকের মাঠ কর্মী টাকা নিয়ে পলাতকঃ মোবাইলে প্রাণনাশের হুমকি।।

।।মোঃ রাজিবুল করিম রোমিও,ভাংগুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি৷

সহযোগীতায়ঃ এস,এম রুবেল,ব্যুরো চীফ রাজশাহীঃ ডিভিশন এ্যান্ড ক্রাইম রিপোর্টাস।।

রাজশাহী বিভাগের পাবনা জেলার ভাংগুড়া উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের চন্ডিপুর বাজারে ডাচ্ বাংলা ব্যাংক লিঃ, এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেটের ২ জন ও,আর,ও ( আউটলেট রিলেশন অফিসার) এজেন্ট ব্যাংকের নগদ ৮০০০/- টাকা, ১ টা ডিজিটাল ক্যামেরা এবং ১ টা মোডেম নিয়ে ৬ ই ফেব্রুয়ারী”২০২০ ইং, বৃহস্পতিবার পলাতক হয়েছে। তারা উধাও হলে আউটলেট এজেন্ট ফেসবুকে তাদের সাথে গ্রাহকদের লেনদেন করতে মানা করে পোস্ট দিলে তাদের একজন সবুজ আহমেদ নীরব এজেন্ট আউটলেটকে মোবাইলে মারা হুমকি দিচ্ছে।
এসব ব্যাপারে চন্ডিপুর আউটলেটর ম্যানেজার জান্নাত সরকার রনি বলেন, গত ১ লা ফেব্রুয়ারি থেকে সবুজ আহমেদ নীরব, গ্রামঃ গজাইল, উপজেলাঃ উল্লাপাড়া এবং আব্দুল্লাহ আল মামুন ও,আর,ও পদে কাজ শুরু করে। ওরা বিগত ১ মাস হলো এই চাকরি করার জন্য নিয়মিত যোগাযোগ করে, কিন্তু আমরা প্রথমে তাদের নিতে অনাগ্রহ প্রকাশ করলে সবুজ বাবা মরা এবং মামুন মা মরা ছেলে বলে মিনতি করলে আমাদের আউটলেট এজেন্ট তাদেরকে গত ১ লা ফেব্রুয়ারি থেকে মাঠে কাজ করার অনুমতি প্রদান করেন। কিন্তু তারা প্রথমেই গ্রামে গ্রামে যেয়ে গ্রাহকদের লোন প্রদান করা হবে বলে একাউন্ট খোলায়। গ্রাহকরা একাউন্ট খোলার পরের দিন থেকেই আমাদের আউটলেটে এসে আমাদের কাছে লোনের জন্য চাপ প্রদান করে। কিন্তু আমরা ও,আর,ও দের কে প্রথম দিনই বলে দেই যে গ্রাহকদের কে লোনের ব্যাপার উৎসাহিত করবেনা এবং বলবে যে লোন যদি আসে তবে আমরাই গ্রাহকদেরকে জানাব। কিন্তু তারা গ্রাহকদের কে প্রথমেই লোন দিবে বলে একাউন্ট খুলায় বলে আমাদের আউটলেট এজেন্ট ও,আর,ও ২ জন এভাবে একাউন্ট খুলতে মানা করলে সেদিন সন্ধ্যার পরে থেকে ২ ও,আর,ও কে খুঁজে পাওয়া যায় না। পরে আমরা দেখি যে সবুজ এবং মামুন তাদের ২ জনের সিভি,আমাদের রকেটের লেনদেনের নগদ ৮০০০/- টাকা, ১ টি ডিজিটাল ক্যামেরা, ১ টি মোডেম আমাদের আউটলেটে নাই। পরে বাজারের বেশ কিছু দোকানদার এসে বলে ওরা ২ জন বাজারের দোকান থেকে আমাদের এজেন্ট এর নাম বলে ৭৫০/- বাকী করেছে। এই ব্যাপারে চন্ডিপুর আউটলেটের এজেন্ট মোছাঃ লায়লা করিম বলেন যে,আমি এজেন্ট হলেও মূলত এজেন্ট টা আমার একমাত্র ছেলে পরিচালনা করে। সবুজ এবং মামুন আমাদের আউটলেট হতে নগদ ৮০০০/- টাকা, ডিজিটাল ক্যামেরা এবং মোডেম নিয়ে পলাতক হলে আমার ছেলে ফেসবুকে পোস্ট করে যেন গ্রাহকেরা তাদের সাথে আর্থিক লেনদেন থেকে বিরত থাকে।

কিন্তু ওই পোস্ট দেওয়ার পর থেকে সবুজ আহমেদ নীরব আমাদের কে নিয়মিত মোবাইল করে হুমকি দিচ্ছে মারার। এই থানায় এখনো কোন অঅভিযোগ কেন দেন নাই প্রশ্ন করলে আউটলেট এজেন্ট বলেন, আসলে আমরা ৮০০০/- টাকার জন্য কোন ঝামেলাতে জড়াতে চাই নাই। ওদিকে সবুজ চন্ডিপুর শাখার গ্রাহকদের কে মোবাইলে কল দিয়ে বলছে যে, চন্ডিপুর আউটলেট গ্রাহকদের জমা কৃত টাকা নিয়ে পালাবে। এই কল পেয়ে গ্রাহকগণ বিভ্রান্ত হয়ে আউটলেটে এসে ম্যানেজার জান্নাত সরকার রনিকে নানান ভাবে অপমান করছে। এই ব্যাপারে আউটলেট ম্যানেজার রনি বলেন, সবুজ গ্রাহকদের কে কল দিয়ে বিভ্রান্ত করাতে গ্রাহকগণ আমাদের আউটলেটে এসে আমাদের সাথে অসদ্ আচরণ করছে এবং তাদের জমা কৃত টাকা ফেরত চাচ্ছে। এদিকে এসব নতুন গ্রাহকদের একাউন্ট গত বৃহস্পতিবার খোলা হয়। এই একাউন্টগুলো অথরাইজড হতে ত ৪/৫ দিন সময় লাগে তা গ্রাহকেরা বুঝতে চেস্টা করছেনা সবুজের ইনধনে। এদিকে আউটলেট এজেন্ট বলেন, ওরা ২ জন ওদের সি,ভি সহ পলাতক বলে ওদের সম্পর্কে আমাদের কাছে কোন তথ্য নাই বিধায় থানায় অভিযোগ করতে যাই নাই।

☞একে ধরিয়ে দেওযার জন্য সাধারন জনগণের কাছে বিনিত আবেদন।

স্যোসিয়াল মিডিয়াতে শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর...