1. eliusmorol@gmail.com : দিঘলিয়া ওয়েব ব্লগ : দিঘলিয়া ওয়েব ব্লগ
  2. rahadbd300@gmail.com : rahad :
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৩:২৮ পূর্বাহ্ন

।।উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে অন্যতম বড় সমস্যা জমি অধিগ্রহণঃ প্রধানমন্ত্রী।।

মো: ইলিয়াস হোসেন
  • সর্বশেষ আপডেট: বৃহস্পতিবার, ৩ মার্চ, ২০২২
  • ২৮৮ বার সংবাদ টি দেখা হয়েছে

উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে অন্যতম বড় সমস্যা জমি অধিগ্রহণ বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য জমি অধিগ্রহণের খবরে রাতারাতি সেখানে স্থাপনা তৈরি করে বাড়তি টাকা আদায়ের চেষ্টা ঠেকানোর কড়া নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন যে, এই প্রবণতার জন্য এতে জমির ধরন পরিবর্তন হয়ে সরকারের অধিগ্রহণ ব্যয় বেড়ে যায়। এজন্য উন্নয়ন প্রকল্পে জমি লাগলে পরিদর্শনের সময় সেই প্রকল্পের ছবি তুলে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

গত বুধবার (২ মার্চ) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের এক সভায় তিনি এ নির্দেশনা দেন। শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে এনইসি সভায় চলতি অর্থবছরের সংশোধিত এডিপি অনুমোদন করা হয়। আর এডিপির আকার ২ লাখ ৭ হাজার ৫৫০ কোটি টাকা। সভায় ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভাশেষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা কথা তুলে ধরেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান।

এনইসিতে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘প্রকল্প বাস্তবায়নে অন্যতম বড় সমস্যা জমি অধিগ্রহণ। প্রকল্পসংশ্লিষ্ট দেখে আসেন এক রকম জমি, প্রকল্প নেয়ার পর দেখা যায় অন্য রকম, সব বসতবাড়ি। প্রকল্প বাস্তবায়ন ও জমি অধিগ্রহণের কথা শুনে অনেকে রাতারাতি জমিতে খুঁটি গেড়ে বসেন। ফসলের জমিকে বসতবাড়ি হিসেবে জাহির করেন। অনেকে বলেন, এটা বাপ দাদার ভিটা। তাই জমি অধিগ্রহণে আগে ছবি নিয়ে রাখতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী, যাতে করে কেউ বলতে না পারেন, জমিতে এটা ছিল, ওটা ছিল। প্রকল্প বাস্তবায়নে জমির প্রয়োজন জানিয়ে কারও জমি অধিগ্রহণ করলে তার সঠিক মূল্য দিতেও বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারের নীতিমালা অনুযায়ী কোনো এলাকার জমি অধিগ্রহণের জন্য বসতবাড়ির ক্ষেত্রে প্রচলিত বাজারদরের তিনগুণ এবং কৃষি জমিতে দ্বিগুণ ক্ষতিপূরণ দেয় সরকার।

স্যোসিয়াল মিডিয়াতে শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর...